পুরুলিয়ায় বনদপ্তরের বিরুদ্ধে অবৈধ ভাবে বনাঞ্চল ধ্বংস,আন্দোলনে নামল আদিবাসী কুড়মি সমাজ।

পুরুলিয়া: অবৈধ ভাবে গাছ কাটার অভিযোগ তুলে পুরুলিয়ায় আন্দোলনে সামিল আদিবাসী কুড়মি সমাজ। আন্দোলনের নাম রাখা হয়েছে “জঁগগল জিআউআ হামদুমি।” পশ্চিমবঙ্গ সহ ওড়িশা,ঝাড়খন্ড ও আসাম রাজ্যে ১০ মে রবিবার থেকে শুরু হয় এই আন্দোলন। এমনকি পার্শ্ববর্তী বাংলাদেশেও জঙ্গল রক্ষার দাবিতে শুরু হয়েছে এই আন্দলন। চলবে ১৭ মে অবধি। আজ জেলার বিভিন্ন প্রান্তে আদিবাসী কুড়মি সমাজের জন প্রতিনিধিরা সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে আন্দোলনে সামিল হন।

অজিত প্রসাদ মাহাতোর অভিযোগ, পুরুলিয়ার কোটশিলা থানার সুপুরডি, গোবিন্দপুর এলাকার ৩০ হেক্টর জুড়ে থাকা শাল গাছ রাতের অন্ধকারে কেটে সাফ করে দিয়েছে বনদপ্তর। এই ঘটনার তীব্র প্রতিবাদ জানাচ্ছি। গতকাল থেকে পশ্চিমবঙ্গ,ওড়িশা, ঝাড়খন্ড ও আসামের বিভিন্ন জায়গায় আন্দোলনে সামিল হয়েছেন আদিবাসী কুড়মি সমাজ। সমাজের সকল শ্রেণীর মানুষকে আন্দোলনে সামিল হওয়ারও আহ্বান জানানো হয়েছে। রাজ্য ও কেন্দ্র সরকার এবিষয়ে কোন ব্যবস্থা না নেন তাহলে আগামী দিনে আরও বৃহত্তর আন্দোলনের পথে নামা হবে।

error: Content is protected !!