পুরুলিয়ার লালপুর কলেজের ঘটনায় ৩ শিক্ষকের নামে থানায় অভিযোগ নিস্তারিণী কলেজের ছাত্রীর।

পুরুলিয়া: পুরুলিয়া জেলার লালপুর কলেজের ঘটনায় এবার ৩ শিক্ষকের নামে থানায় অভিযোগ দায়ের করলো নিস্তারিণী কলেজের সেই ছাত্রী ও তার পরিবার।ঘটনা প্রসঙ্গে জানা যায়,লালপুর মহাত্মা গান্ধী কলেজে পরীক্ষাকেন্দ্র পড়েছিল ওই ছাত্রীটির।পরীক্ষা চলাকালীন নকল করতে গিয়ে ক্লাসরুমে থাকা শিক্ষকদের কাছে ধরা পড়ে যায় সে।তারপর এই ছাত্রীটি রাগের মাথায় শিক্ষকদের সঙ্গে বতানুবাদে জড়িয়ে পড়ে।শুধু তাই নয় নিজের উত্তরপত্র শিক্ষকদের সামনে ছিড়ে ফেলে দেয় সে। এবং ক্লাস থেকে বেরিয়ে যায়।

অপরদিকে ক্লাস রুমের ভিতরে চলা এমন দৃশ্য ওই কলেজেরই বাংলা বিভাগের অধ্যক্ষ ৩০ সেকেন্ডের একটি ভিডিও করে সোশ্যাল সাইটে তা আপলোড করে দেয়।তারপরই মুহূর্তের মধ্যে সেই ভিডিও ভাইরাল হয়ে পড়ে সোশ্যাল মিডিয়ায়।যার ফলে মানসিক অবসাদে ভুগতে থাকে ওই ছাত্রী।শেষ পর্যন্ত কোন উপায় দেখতে না পেয়ে ওই ছাত্রী আত্মহত্যার পথ বেছে নেয়।এমনকি আত্মহত্যার চেষ্টাও করে।যদিও ভাগ্যের জেরে তার কোনো ক্ষতি হয়নি।

আর এই ঘটনার প্রতিবাদে পুরুলিয়া মফস্বল থানায় মহাত্মা গান্ধী কলেজের বাংলা বিভাগের শিক্ষক ঠাকুরদাস মাহাতো, ইংরেজী বিভাগের শিক্ষক রাহুল চক্রবর্তী এবং সংস্কৃত বিভাগের শিক্ষক অসিত বরণ রায়-এই তিন শিক্ষকের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করে ওই ছাত্রী ও তার পরিবার।পাশাপাশি অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে পুরুলিয়ার সাইবার থানাতেও।

error: Content is protected !!