ট্রেড লাইসেন্সের জন্য ৫০ হাজার টাকা নেওয়ার অভিযোগ উঠল প্রধানের বিরুদ্ধে।

বিশ্বজিৎ সরকার,দার্জিলিং:- ট্রেড লাইসেন্সের জন্য ৫০ হাজার টাকা দাবী প্রধানের বিরুদ্ধে। অভিযোগ স্থানীয় এক ব্যবসায়ীর। প্রধানের সেই সময়ের ভিডিও তোলার অভিযোগে পুলিশকে ডেকে ব্যবসায়ীকে গ্রেফতারের হুমকি। অবশেষে প্রধানের অভিযোগের ভিত্তিতে ব্যবসায়ী সজল কুমার মন্ডলকে গ্রেফতার করে আশিঘর ফাড়ির পুলিশ। যদিও টাকা চাওয়ার কথা স্বীকার করে নিয়েছেন ডাবগ্রাম দুই এর প্রধান সুধা সিংহ চ্যাটার্জী। তবে তা এলাকার উন্নয়নের জন্য এই টাকা নেওয়া হয় বলে জানান প্রধান। আশিঘর এলাকার ব্যবসায়ী সজল কুমার মন্ডলের অভিযোগ, মঙ্গলবার সকালে নিজের কম্পিউটার ট্রেনিং ইন্সটিটিউট এর ট্রেড লাইসেন্সের জন্য প্রধানের কাছে গেলে প্রধান সেই ট্রেড লাইসেন্সের জন্য ৫০ হাজার টাকা দাবী করে বলে অভিযোগ। সেই কথোপকথন নিজের মোবাইলে রেকর্ডিংও করেন সজল বাবু। সেটি বুঝতে পেরে প্রধান সহ তার অফিসে থাকা অন্যান্য কর্মীরা আমাকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে ও আমার মোবাইল কেরে নিয়ে পুলিশ ডেকে আমাকে গ্রেফতার করিয়ে দেয় বলেও অভিযোগ করেন ব্যবসায়ী সজল বাবু………।
টাকা চাওয়ার বিশয়টি প্রধান সুধা সিংহ চ্যাটার্জী স্বীকার করে নিলেও, তা শুধুমাত্র এলাকার উন্নয়নের জন্য নেওয়া হয় বলে জানান তিনি…….।
একদিকে রাজ্যে শিল্প টানতে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্ধ্যোপাধ্যায়ের নির্দেশ, জোর কোরে কারো কাছ থেকে টাকা তোলা যাবে না, অন্যদিকে এলাকার উন্নয়নের নাম কোরে খোদ পঞ্চায়েত অফিসেই ট্রেড লাইসেন্স দেবার নাম কোরে ব্যবসায়ীদের কাছ থেকে প্রধানের টাকা চাওয়ার ঘটনা সত্যি নজিরবিহীন। এই ধরনের ঘটনা বন্ধ হওয়ারও দাবী জানিয়েছেন নাম জানাতে অনিচ্ছুক এলাকার সাধারণ মানুষ।

error: Content is protected !!